obaidul kader

প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার এক্সপ্রেসওয়ের কারওয়ান বাজার র‍্যাম্প : সেতুমন্ত্রী

বাংলাদেশ

ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের তেজগাঁও থেকে কারওয়ান বাজারের এফডিসি গেট সংলগ্ন ১ দশমিক ৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের ডাউন র‍্যাম্প চালু করা হয়েছে। র‍্যাম্পটি নগরবাসীর জন্য এটি ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার’ বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘আগামী বছরের শুরুতে পুরো প্রকল্পের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

আজ বুধবার (২০ মার্চ) সকালে এফডিসি গেট সংলগ্ন ডাউন রাম্প উন্মুক্তকরণ অনুষ্ঠানে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিমানবন্দরের কাওলা থেকে, বনানী, ফার্মগেট, কমলাপুর হয়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুতুবখালী পর্যন্ত এ প্রকল্পের মোট দৈর্ঘ্য ১৯ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার, র‍্যাম্পসহ প্রকল্পের মোট দৈর্ঘ্য ৪৬ দশমিক ৭৩ কিলোমিটার। এতে মোট ব্যয় আট হাজার ৯৪০ কোটি টাকা। বর্তমানে প্রকল্পের অগ্রগতি ৭২ দশমিক ৫১ শতাংশ।

এ সময় প্রকল্প বাস্তবায়নের অগ্রগতি নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কাজের অগ্রগতি নিয়ে প্রশ্ন করা উচিত নয়। দিবারাত্রি কাজ চলছে। আমরা পদ্মাসেতু, মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে করেছি। বিশ্ব পরিস্থিতিতেও কিছু জটিলতা আছে। যেসব দেশ এসব প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত তাদের সাথে কনকারেজের বিষয়ে আছে। ঘাটে ঘাটে তাদের কনকারেজ নিতে হয়। বিশ্বের বর্তমান প্রেক্ষাপটে যন্ত্রপাতি আমদানিতে কিছু সমস্যা হয়। আমাদের অনাদর ও অনিচ্ছায় প্রকল্প দেরি হচ্ছে, এটা ঠিক নয়।’

প্রকল্পে অর্থায়নে কোনো জটিলতা আছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ফান্ডিংয়ে জটিলতা থাকলে কাজগুলো হচ্ছে কী করে?’

রমজানে ঢাকায় যানজট পরিস্থিতির অবনতি নিয়ে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘ইফতারের পরে তো যানজট থাকে না। রোজার মাসে কোনো কোনো সময়ে যানজট হয়। সব সময় থাকে না। যানজট নিরসনে আমাদের সব পরিকল্পনা এখনও বাস্তবায়ন হয়নি। উত্তরা থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেল চালু হওয়ায় সময় ও অর্থ সাশ্রয় হচ্ছে। আরও পাঁচটি মেট্রোলাইন বাকি আছে। দুটির কাজ চলমান। এগুলো সম্পন্ন হয়ে গেলে যানজট ধীরে ধীরে আরও কমে যাবে।’

এ সময় বিআরটি প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়েও কথা বলেন সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘যাদের কাজ দেওয়া হয়েছে, তাদের গাফিলতির কারণে একটিমাত্র প্রকল্প বিলম্বিত। আশা করি, ডিসেম্বরের আগেই বিআরটিসির বিশেষায়িত বাস চলে আসবে। ডিসেম্বর থেকে বিআরটি প্রকল্প পুরোপুরি চালু হবে। এর উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

পরে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী তেজগাঁও থেকে এফডিসি গেট সংলগ্ন ডাউন রাম্পে যান চলাচল উন্মুক্ত করেন। এ সময় সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এ বি এম আমিনুল্লাহ নূরী ও সেতু বিভাগের সচিব মো. মনজুর হোসেনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।