যশোর সন্ত্রাস Jessore Terrorist jashore

শীর্ষ সন্ত্রাসী গোল্ডেন সাব্বিরের বিরুদ্ধে মামলা

বাংলাদেশ অপরাধ

যশোরে চিহ্নিত সন্ত্রাসী গোল্ডেন সাব্বিরের নেতৃত্বে জিসান নামে এক কিশোরকে অপহরণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। ওই মামলায় সাব্বিরসহ তিনজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত পরিচয়ের আরও দুই তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। সন্ত্রাসী সাব্বির শহরের শংকরপুর কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকার মেসিয়ার খোকনের ছেলে।

এই মামলার অপর আসামিরা হচ্ছে, শংকরপুর পশু হাসপাতাল এলাকার আমিরুল ইসলামের ছেলে সিহাব ও শাজাহানের ছেলে স্বাধীন। শুক্রবার অপহৃত কিশোর জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রহমান জবানবন্দি গ্রহণ করেছেন।

বাদী শহরের চাঁচড়া রায়পাড়া বিল্লাল মসজিদ এলাকার রবিউল ইসলাম ফকির মামলায় উল্লেখ করেছেন, আসামিরা এলাকার চিহ্নত সন্ত্রাসী। তারা সকলেই  ছিনতাই, চাঁদাবাজি, ডাকাতি, হত্যা, অস্ত্র ও মাদক কারবারিসহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ড করে বেড়ায়। সে কারণে ওই সন্ত্রাসীরা বিভিন্ন সময় বাদীর ছেলে জিসানকে বিভিন্ন মিটিং ও মিছিলে নিয়ে যেতে চায়।

কিন্তু পরিবারের লোকজন জিসানকে ওই সন্ত্রাসীদের সাথে চলাফেরা করতে নিষেধ করায় তারা ক্ষিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে তারা পরিকল্পিতভাবে জিসানকে বিভিন্ন ধরনের অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িয়ে হয়রানি করার চেষ্টা করে।

বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে বাড়ি থেকে জিসান শংকরপুর আলতাপের মোড়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হয়। চাঁচড়া রায়পাড়া বিল্লাল মসজিদের সামনে আসলে সন্ত্রাসীরা জোরপূর্বক মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে চাঁচড়া খামারপাড়া সোলাইমানের চায়ের দোকানের পিছনে নিয়ে আটকে রেখে মারপিট করে।

জিসানকে নিয়ে যাওয়ার সাথে সাথে খবর পেয়ে তার পিতা রবিউল ইসলাম থানা পুলিশকে অবহিত করেন। পুলিশ বিভিন্নস্থানে তার খোঁজখবর নিয়ে অবস্থান জানতে পারে। এক পর্যায়ে তারা জিসানকে বাড়ির সামনে দিয়ে তারা চলে যায়।

এ ঘটনায় জিসানের পিতা রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে সন্ত্রাসী সাব্বিরসহ ওই তিনজনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা করেছেন। গতকাল শুক্রবার অপহৃত জিসান আদালতে জবানবন্দি প্রদান করে।