nusrat jahan jerin rangpur

মেধা খাটান, নয়তো একটা সময় মরিচা পড়ে যাবে

সাক্ষাৎকার অর্থনীতি

গতানুগতিক চিন্তা-ভাবনার বাইরেও নিজের আলাদা একটা পরিচয়ের জন্য আজ উদ্যোগকে বেছে নিচ্ছে আমাদের শিক্ষিত সমাজ। তাই শিক্ষিত সমাজের আজ গ্রাজুয়েশন শেষ করেও গতানুগতিক চাকরির চিন্তা বাদে নিজের একটা আলাদা পরিচয়ের উদ্যোগ।

বাংলা নিউজ ইনফো” আজ সাক্ষাৎকার নিয়েছে এমনই একজন নারীর। যিনি উদ্যোগকে বেছে নিয়েছেন প্রতিষ্ঠিত হওয়ার জন্য নিজের একটা পরিচয় হিসেবে।

নুসরাত জাহান জেরিন, রংপুর কারমাইকেল কলেজ থেকে মার্কেটিং বিভাগে স্নাতক করেছেন। তাঁর জন্মস্থান বগুড়া। এখন তিনি রংপুরে থাকেন।

(১) উদ্যোক্তা হওয়ার চিন্তাটা কিভাবে আসলো? এই সম্পর্কিত পুরো গল্পটা জানতে চাই।
– ছোটোবেলা থেকেই ভীষন ইন্ট্রোভার্ট আমি। ঘরকুনো স্বভাবের। সোস্যাল মিডিয়াতেও খুব কম এক্টিভ থাকতাম। নিজে কিছু করবো এরকম চিন্তা কেনো যেনো কখনও মাথায় আসতো না।

ছোট্ট একটা সংসার আমার। এটা নিয়েই সময় কেটে যেতো। হঠাৎ কোনো একটা কারনে আমার মনে হলো আমার কিছু করা উচিত। আমাকেও পারতে হবে। আমিও কিছু করতে চাই। আর সে কারনটা আমি আজ বলবো না। বলবো সেদিন যেদিন আমি সফল হবো। আমি নিজের একটা পরিচয় গড়ে তুলতে চাই।

(২) আপনার শিক্ষাজীবন, ব্যক্তিজীবন ও পারিবারিক জীবনের না বলা গল্প জানতে চাই।
– আমার স্কুল জীবন কেটেছে বগুড়ায়। সেখান থেকে ২০১২ সালে এসএসসি কমপ্লিট করে চলে যাই ঢাকায়। মতিঝিল আইডিয়াল কলেজ থেকে ২০১৪ সালে এইচএসসি শেষ করি।

তারপর ভালো কোনো পাব্লিক ভার্সিটিতে চান্স না পাওয়ার কারনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় (রংপুর কারমাইকেল কলেজ) থেকে মার্কেটিং এ অনার্স শেষ করেছি গত বছর।

ব্যাক্তিগত ও পারিবারিক গল্প বলতে হাসব্যান্ড ও ছোট্ট একটা মেয়ে নিয়ে ছোট সংসার আমার। ভালো আছি আলহামদুলিল্লাহ।

(৩) আপনি কি কি পণ্য নিয়ে বিজনেস করেন এবং কিভাবে তার বিস্তারিত জানতে চাই৷
– আমি কাজ করছি লেডিস ড্রেস, কসমেটিকস ও জুয়েলারি নিয়ে। বিভিন্ন ডিলারের কাছে পাইকারি নিয়ে খুচরা সেল করি।

আমার নিজের গার্লস গ্রুপ ও কম্বাইন পেজ আছে। গ্রুপ ও পেজের নাম Riontys Dream. এগুলোতেই বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে আমি প্রোডাক্ট সেল করি।

(৪) বিজনেসের জন্য পরিবার থেকে কোন উৎসাহ অথবা বাঁধা পান কিনা?
– না, আমি আমার পরিবার থেকে তেমন কোনো বাঁধা পাইনি। উৎসাহ পেয়েছি সবার কাছেই মোটামুটি।

আমার বড় বোনের কাছে সব চেয়ে বেশি উৎসাহ পাই। বলতে গেলে সেই আমার বিজনেস জীবনের শক্তি।

আরও পড়ুনঃ চাকরি যত ভালোই হোক পরাধীন, উদ্যোক্তা স্বাধীন

(৫) এটা নিয়ে আপনার ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কি?
– এখন যেসব নিয়ে কাজ করছি ভবিষ্যতে আরো বাড়াতে চাই। আমি চাই আমার বিজনেস টা এমন জায়গায় যাক যেখানে গেলে আমি মানুষকে কর্মস্থান করে দিতে পারবো।

(৬) যারা নতুন নতুন উদ্যোক্তা হতে চায় ও নতুন কিছু নিয়ে কাজ করতে চায় তাদের উদ্দ্যেশ্যে কিছু বলেন!
– যারা নতুন উদ্যোক্তা হতে চান এবং নতুন কিছু নিয়ে কাজ করতে চান তাদের উদ্দেশ্যে বলবো সাহস করে শুরু করে ফেলেন।

মেধা খাটান নয়তো একটা সময় মরিচা পড়ে যাবে। নিজের একটা পরিচয় গড়ে তুলুন। ইনশাআল্লাহ সফল হবেন।

বাংলা নিউজ ইনফো” পত্রিকাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

বিশেষ ঘোষণা:
আপনার লেখা কলাম, ছোটগল্প, জীবনের না বলা গল্প অথবা উদ্যোক্তা হয়ে ওঠার গল্প শেয়ার করুন সবার সাথে। পত্রিকায় প্রকাশের জন্য যোগাযোগ করুন আমাদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজেঃ
https://www.facebook.com/banglanewsinfo.official

1 thought on “মেধা খাটান, নয়তো একটা সময় মরিচা পড়ে যাবে

Comments are closed.