bus stand - বাস স্টান্ড

বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ৭ এপ্রিল থেকে

বাংলাদেশ

বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ৭ এপ্রিল থেকে। আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আগামী শুক্রবার থেকে দূরপাল্লার বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রির এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন। আজ বুধবার অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শুভঙ্কর ঘোষ রাকেশ এ তথ্য জানিয়েছেন।

বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু ৭ এপ্রিল

তবে প্রতি বছরের মতো এবারও দক্ষিণাঞ্চলের যাত্রীরা অগ্রিম বাসের টিকিট কেনার সুযোগ পাবেন। রাজধানীর গাবতলী, শ্যামলী, মতিঝিল, আরামবাগ কাউন্টার থেকে টিকিট সংগ্রহ করা যাবে। এর বাইরে সিলেট ও চট্টগ্রাম, কক্সবাজারের কিছু টিকিট অগ্রিম ও অনলাইনে বিক্রি করা হবে।

শ্যামলী এন আর ট্র্যাভেলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রাকেশ বলেন, বাস মালিকরাই আগামী ৭ এপ্রিল থেকে একযোগে ঈদের অগ্রিম টিকিট দেওয়া শুরু করবে। ওই দিন সকাল থেকেই সংশ্লিষ্ট বাসের কাউন্টারে টিকিট পাবেন যাত্রীরা। ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত সময়ের অগ্রিম টিকিট দেওয়া হবে।

টিকিট কালোবাজারির বিষয়ে তিনি বলেন, যাত্রীরা যাতে বাসের অগ্রিম টিকিট সুশৃঙ্খলভাবে কাউন্টার থেকে কিনতে পারেন, সেজন্য বাস মালিকদের পক্ষ থেকে মনিটরিং টিম কাজ করবে। তবে বাসের কোনো টিকিট কালোবাজারি হবে না। কারণ বাস মালিকদের মনিটরিং টিমের সঙ্গে পুলিশ-প্রশাসনও কাজ করবে। এ ছাড়া প্রশাসনের গোয়েন্দা নজরদারির মাধ্যমেও টিকিট কালোবাজারি ও যাত্রী হয়রানি রোধ করা হবে।

আরও পড়ুনঃ রাজধানী ঢাকায় তীব্র যানজট, অতিষ্ঠ নগরবাসী

বাসের ভাড়ার বিষয়ে তিনি বলেন, বিআরটিএর নির্ধারিত ভাড়া অনুযায়ী বাসের ভাড়া নেওয়া হবে। ভাড়ার তালিকার বাইরে বাড়তি ভাড়া নেওয়া যাবে না। সব বাস মালিকদের সেই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বাসের অগ্রিম টিকিট বিক্রির ব্যাপারে জানতে চাইলে সোহাগ পরিবহনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারুক তালুকদার বলেন, যাত্রীরা যেন ভোগান্তি ছাড়াই বাসের টিকিট সংগ্রহ করতে পারেন সেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। মূলত বিলাসবহুল বাসের টিকিটের চাহিদা বেশি থাকে বলে জানান তিনি।