গরম - hot weather - hot temperature

গরম বাড়বে রাজশাহী ও যশোর অঞ্চলে, মৃদু দাবদাহ বয়ে যাবে

বাংলাদেশ

দেশের ছয়টি জেলায় দাবদাহ শুরু হয়েছে। আগামীকাল বুধবারও দিনভর প্রখর রোদ থাকতে পারে। বাড়তে পারে রাত ও দিনের তাপমাত্রা। দাবদাহ দেশের আরও কয়েকটি জেলায় ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আজ মঙ্গলবার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আগামী তিন দিনে তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দুই-এক জায়গায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও দমকা হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এ ছাড়া দেশের অন্যত্র অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে।

রাজশাহী, পাবনা, যশোর, ফরিদপুর, চুয়াডাঙ্গা ও কুষ্টিয়ার ওপর দিয়ে মৃদু দাবদাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা বিস্তার লাভ করতে পারে।

আজ দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গায়। সর্বোচ্চ ১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে সিলেটে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ডিমলা ও রাজারহাটে ১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে আজ রাজধানীতে তাপমাত্রা আগের দিনের তুলনায় বাড়েনি। গতকাল সোমবার ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আর মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়ে ৩৩ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস হলে একে মৃদু দাবদাহ বলা হয়। আর ৩৮ থেকে ৩৯ ডিগ্রি হলে মাঝারি এবং ৪০ ডিগ্রি বা এর বেশি হলে তীব্র দাবদাহ বলা হয়। সাধারণত এপ্রিল মাসে দেশের তাপমাত্রা বেশি থাকে। সূর্যের আলো খাড়া পড়ায় মেঘ কম থাকে। বৃষ্টি হলেও তা দমকা হাওয়ার কারণে বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। মে মাসে বৃষ্টি বেড়ে গিয়ে তাপমাত্রা আবার কমতে থাকে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ বলেন, আপাতত দেশের বেশির ভাগ এলাকা মেঘমুক্ত। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে দেশে বৃষ্টির সম্ভাবনা কম। তবে হঠাৎ কোথাও কোথাও বৃষ্টি হলেও তা বেশি সময় স্থায়ী হবে না।